image

আপনি একটা বিষয় নিয়ে কষ্ট পাচ্ছেন।
বারবার মনে পড়ছে। স্মৃতিচারণ করে
নিজেকে নিজে কষ্ট দিচ্ছেন। কী
লাভ এতে? এভাবে কষ্ট পেয়ে, স্ট্রেস
নিয়ে কোনো লাভ আছে? তার চেয়ে
বরং ভুলে যান। সবকিছু সহজ স্বাভাবিক
ভাবে নিন। নিজের জীবনে কিছু
আনএক্সপেক্টেড ঘটনা ঘটার পরও মুখে
সবসময় হাসি দেখে এক ভাই কনফিউজড
হয়ে জিজ্ঞেস করেছিলেন,
“ভাই আপনি এখনো হাসছেন? আমারই
তো খারাপ লাগছে!”
বলেছিলাম, “হা হা ভাই! আমরা
আল্লাহর যেকোনো ফায়সালার উপর
সন্তুষ্ট!”
.
হ্যাঁ, আমাদের আল্লাহর যেকোনো
সিদ্ধান্তের উপর সন্তুষ্ট থাকতে হবে।
তিনি কখনো আমাদের উপর অবিচার
করেন না। তিনি আমাদের জন্য যা
উত্তম তাই করেন। আল্লাহ্ সুবাহানাহু
ওয়া তা’অালা যদি আমাদের
দেখিয়ে দিতেন কিভাবে তিনি
সমস্যাগুলোর সমাধান করেন তো আমরা
কৃতজ্ঞতা সহকারে তাঁর দরবারে
সিজদায় পড়ে থাকতাম। তাই আল্লাহর
উপর দৃঢ় বিশ্বাস রাখুন। সব কষ্ট ভুলে যান।
জীবনকে সহজভাবে নিন। যেকোনো
সমস্যা ঠান্ডা মাথায় মোকাবেলা
করুন। সর্বাবস্থায় আল্লাহ্
আজ্জাওয়াজালের উপর ভরসা রাখুন,
কৃতজ্ঞ থাকুন আমাদের রবের প্রতি।
.
তিনি আপনাকে ঠকাবেন

Advertisements

kasasul quran কাসাসুল কুরআন-১-১১ (পূর্ণ সেট)

কাসাসুল কুরআন-১-১১ (পূর্ণ সেট)

image

কুরআনে বর্ণিত ঘটনাবলির অধিকাংশই
প্রাচীনকালের বিভিন্ন জাতি-
গোষ্ঠী ও তাদের প্রতি প্রেরিত
নাবি-রাসূল (সা.) সম্পর্কিত। দুঃখের
বিষয় হলো, সেই জাতি-গোষ্ঠীর
পরিচয় ও নাবি-রাসূলদের জীবন-চরিত
সম্পর্কে আমাদের অনেকেরই স্বচ্ছ
জ্ঞান নেই। বরং উদ্ভট গল্প-
কাহিনীগুলোই লোকমুখে বেশি
প্রচলিত।
১১ খণ্ডের এ বইয়ে কুরআনে বর্ণিত
বিভিন্ন নাবি-রাসূল ও ঐতিহাসিক
জাতি-গোষ্ঠীর পরিচয়, সময়কাল,
তাদের কর্ম ও জীবনের ওপর স্বার্থক
আলোকপাত করা হয়েছে।
ক্ষেত্রবিশেষে বিভিন্ন সংশয়,
জটিলতা ও ইসরাঈলী গল্পকাহিনির
অপনোদন করা হয়েছে।
লেখক: মাওলানা হিফজুর রহমান
অনুবাদক: আবদুস সাত্তার আইনী
অনুবাদক: মাওলানা আব্দুল্লাহ আল ফারূক
কাসেমী
অনুবাদক: আব্দুল কাইয়ুম শেখ
প্রকাশনী: মাকতাবাতুল ইসলাম
প্রথম প্রকাশ: জানুয়ারী, ২০০০
প্রচ্ছদ মূল্য ৳২৩০০.০০

যাকাত (পর্ব-২)

যাকাত (পর্ব-২)
যাকাত সম্পর্কে জানা জরুরী এমন
গুরুত্বপূর্ণ কতগুলো বিষয়
সংক্ষিপ্তভাবে বর্ণনা করা হলো।
(১) নিসাব পরিমান স্বর্ণ, রূপা, ক্যাশ
টাকা পূর্ণ এক বছর না হওয়া পর্যন্ত
যাকাত দেওয়া ফরয হবেনা।

image

যেইদিন
বছর পূর্ণ হবে সেইদিন যাকাত দেওয়া
ফরয হবে। রমযান মাসে যাকাত
দিতে হবে এমন কোন কথা নেই, যার
উপর যেইদিন যাকাত ফরয হবে তখনই
যাকাত দিতে হবে। Continue reading “যাকাত (পর্ব-২)”

যাকাত (পর্ব-১)

যাকাত (পর্ব-১)
বিসমিল্লাহ। আলহা’মদুলিল্লাহ।
ওয়াস সালাতু ওয়াস সালামু আ’লা
রাসুলিল্লাহ।
যাকাত ইসলামের তৃতীয় রুকনঃ
রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আ’লাইহি
ওয়া সাল্লাম বলেছেন, “ইসলামের
রুকন বা ভিত্তি পাচটি বিষয়ের উপর
প্রতিষ্ঠিত। আর তা হচ্ছে, আল্লাহকে
এক বলে বিশ্বাস করা, সালাত
কায়েম করা, যাকাত আদায় করা,
রামাযানের সাওম পালন করা এবং
হজ্জ করা।” সহীহ মুসলিমঃ ১৮। Continue reading “যাকাত (পর্ব-১)”

ইতিকাফ কেন করবেন

যারা ইতিকাফে বসবেন তারা ২০ রমজান
মাগরিবের আগেই মসজিদে অবস্তান
করুন
।২০ রমজান মাগরিব থেকেই শেষ ১০ দিন
শুরু….
.

image

ইতিকাফ কেন করবেন
নবী (সঃ) ইতিকাফকে খুব গুরুত্ব
দিতেন। হজরত আয়েশা (রা.)
বলেছেন, ‘রাসুলুল্লাহ (সা.) প্রতি
রমজানের শেষ দশক (মসজিদে)
ইতিকাফ করতেন। এ আমল তাঁর
ইন্তেকাল পর্যন্ত কায়েম
ছিল।’ (বুখারি ও মুসলিম) Continue reading “ইতিকাফ কেন করবেন”

রামাযান মাসের মর্যাদা ও রোযার গুরুত্

*মাহে রমাযান: অসংখ্য কল্যাণের
হাতছানি*
-আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল
জলীল
লিসান্স, মদীনা ইসলামী
বিশ্ববিদ্যালয়, সউদী আরব
*রামাযান মাসের মর্যাদা ও
রোযার গুরুত্ব Continue reading “রামাযান মাসের মর্যাদা ও
রোযার গুরুত্”